Skip to main content

সূরা মারইয়াম শ্লোক 1

كٓهيعٓصٓ
কাফ-হা-ইয়া-'আইন-স-দ

তাফসীর তাইসীরুল কুরআন:

কাফ্-হা-ইয়্যা-‘আইন-সাদ।

1 আহসানুল বায়ান | Tafsir Ahsanul Bayaan

কা-ফ হা ইয়া আ’ইন স্বা-দ।

2 আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া | Tafsir Abu Bakr Zakaria

কাফ-হা-ইয়া-‘আইন-সোয়াদ [১];

৯৮ আয়াত, মক্কী

সূরা সম্পর্কিত তথঃ আব্দুল্লাহ ইবন মাসউদ রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন; বনী ইসরাইল, আল-কাহফ, মারইয়াম, ত্বা-হা এবং আম্বিয়া এগুলো আমার সবচেয়ে প্রাচীন সম্পদ বা সর্বপ্রথম পুজি। [বুখারীঃ ৪৭৩৯] তাই এ সূরাসমূহের গুরুত্বই আলাদা। তন্মধ্যে সূরা মারইয়ামের গুরুত্ব আরো বেশী। এদিক দিয়েও যে, এ সূরায় ঈসা আলাইহিসসালাম ও তার মা সম্পর্কে স্পষ্ট বর্ণনা দেয়া হয়েছে। যা অনুধাবন করলে নাসারাদের ঈমান আনা সহজ হবে। উম্মে সালামাহ রাদিয়াল্লাহু ‘আনহা বলেন; হাবশার রাজা নাজাসী জাফর ইবন আবি তালিবকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন, তোমার কাছে তিনি (মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) আল্লাহর কাছ থেকে যা নিয়ে এসেছেন তার কিছু কি আছে? উম্মে সালামাহ বলেন, তখন জাফর ইবন আবি তালিব বললেন; হ্যাঁ। নাজাসী বললেন; আমাকে তা পড়ে শোনাও। জাফর ইবন আবি তালিব তখন কাফ-হা-ইয়া--"আইন-সাদ থেকে শুরু করে সূরার প্রথম অংশ শোনালেন। উম্মে সালামাহ রাদিয়াল্লাহু ‘আনহা বলেন; আল্লাহর শপথ করে বলছি, এটা শোনার পর নাজাসী এমনভাবে কাঁদতে থাকল যে, তার চোখের পানিতে দাড়ি পর্যন্ত ভিজে গেল। তার দরবারের আলেমরাও কেঁদে ফেলল। তারা তাদের ধর্মীয় কিতাবসমূহ বন্ধ করে নিল। তারপর নাজাসী বলল; “অবশ্যই এটা এবং যা মূসা নিয়ে এসেছে সবই একই তাক থেকে বের হয়েছে। ’ [মুসনাদে আহমাদ; ৫/৩৬৬-৩৬৮]

-----------------------

[১] এ শব্দগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত বর্ণনা সূরা আল-বাকারার শুরুতে করা হয়েছে।

3 আল-বায়ান ফাউন্ডেশন | Tafsir Bayaan Foundation

কাফ-হা-ইয়া-‘আঈন-সোয়াদ।

4 মুহিউদ্দীন খান | Muhiuddin Khan

কাফ-হা-ইয়া-আইন-সাদ

5 জহুরুল হক | Zohurul Hoque

কাফ-হা-ইয়া-'আইন-স্বাদ।