Skip to main content
ARBNDEENIDTRUR
bismillah
كٓهيعٓصٓ
কাফ-হা-ইয়া-'আইন-স-দ

কাফ্-হা-ইয়্যা-‘আইন-সাদ।

ব্যাখ্যা
ذِكْرُ
উল্লেখ (করা হচ্ছে)
رَحْمَتِ
অনুগ্রহের
رَبِّكَ
তোমার রবের
عَبْدَهُۥ
তাঁর দাস
زَكَرِيَّآ
যাকারিয়্যার (প্রতি)

এটা তোমার প্রতিপালকের অনুগ্রহের বিবরণ তাঁর বান্দাহ যাকারিয়্যার প্রতি।

ব্যাখ্যা
إِذْ
যখন
نَادَىٰ
সে ডেকেছিলো
رَبَّهُۥ
তাঁর রবকে
نِدَآءً
ডাক
خَفِيًّا
নিভৃতে

যখন সে তার প্রতিপালককে আহবান করেছিল- এক গোপন আহবানে।

ব্যাখ্যা
قَالَ
সে বলেছিলো
رَبِّ
"হে আমার রব
إِنِّى
আমি নিশ্চয়ই (এ অবস্থায় যে)
وَهَنَ
নরম হয়েছে
ٱلْعَظْمُ
হাড় (মজ্জা)
مِنِّى
আমার হ'তে
وَٱشْتَعَلَ
এবং উজ্জ্বল (শুভ্র হয়েছে)
ٱلرَّأْسُ
মাথা (চুল)
شَيْبًا
বার্ধক্যের (চিহ্নে)
وَلَمْ
এবং নি
أَكُنۢ
আমি হই
بِدُعَآئِكَ
কারণে তোমাকে ডাকার
رَبِّ
হে আমার রব
شَقِيًّا
ব্যর্থকাম

সে বলেছিল, ‘হে আমার প্রতিপালক! আমার হাড়গুলো দুর্বল হয়ে গেছে, আর বার্ধক্যে আমার মস্তক সাদা হয়ে গেছে, হে আমার প্রতিপালক! তোমাকে ডেকে আমি কখনো বিফল হইনি।

ব্যাখ্যা
وَإِنِّى
এবং আমি নিশ্চয়ই
خِفْتُ
ভয় করছি
ٱلْمَوَٰلِىَ
আমার স্বগোত্রদের
مِن
থেকে
وَرَآءِى
আমার পর
وَكَانَتِ
এবং হয়েছে
ٱمْرَأَتِى
আমার স্ত্রী
عَاقِرًا
বন্ধ্যা
فَهَبْ
তবুও দান করো
لِى
আমাকে
مِن
থেকে
لَّدُنكَ
তোমার নিকট
وَلِيًّا
এক উত্তরাধিকারী

আমার পরে আমার স্বগোত্রীয়রা (কী করবে) সে সম্পর্কে আমি আশঙ্কাবোধ করছি, আর আমার স্ত্রী হল বন্ধ্যা, কাজেই তুমি তোমার তরফ থেকে আমাকে একজন উত্তরাধিকারী দান কর

ব্যাখ্যা
يَرِثُنِى
আমার উত্তরাধিকারী হবে সে
وَيَرِثُ
ও উত্তরাধিকারী হবে
مِنْ
ব্যাপারে
ءَالِ
বংশের
يَعْقُوبَۖ
ইয়াকুবের
وَٱجْعَلْهُ
এবং তাকে করো
رَبِّ
হে আমার রব
رَضِيًّا
সন্তোষজনক"

যে আমার উত্তরাধিকারী হবে আর উত্তরাধিকারী হবে ইয়া‘কুব পরিবারের; আর হে আমার প্রতিপালক! তাকে করুন আপনার সন্তুষ্টির পাত্র।

ব্যাখ্যা
يَٰزَكَرِيَّآ
"(বলা হলো) হে যাকারিয়্যা
إِنَّا
নিশ্চয়ই আমরা
نُبَشِّرُكَ
তোমাকে সুসংবাদ দিচ্ছি
بِغُلَٰمٍ
সম্পর্কে এক পুত্রের
ٱسْمُهُۥ
তার নাম (হবে)
يَحْيَىٰ
ইয়াহইয়া
لَمْ
নি
نَجْعَل
আমরা করি
لَّهُۥ
তার জন্য
مِن
থেকে
قَبْلُ
ইতিপূর্বে (অন্য কাউকে)
سَمِيًّا
(সম) নামকরণ"

তিনি বললেন, ‘হে যাকারিয়া! আমি তোমাকে একটি পুত্রের শুভ সংবাদ দিচ্ছি যার নাম হবে ইয়াহইয়া, পূর্বে এ নামে আমি কাউকে আখ্যায়িত করিনি।’

ব্যাখ্যা
قَالَ
সে বললো
رَبِّ
"হে আমার রব
أَنَّىٰ
কেমন করে
يَكُونُ
হবে
لِى
আমার
غُلَٰمٌ
পুত্র
وَكَانَتِ
যখন হলো
ٱمْرَأَتِى
আমার স্ত্রী
عَاقِرًا
বন্ধ্যা
وَقَدْ
এবং নিশ্চয়ই
بَلَغْتُ
আমি উপনীত হয়েছি
مِنَ
কারণে
ٱلْكِبَرِ
বার্ধক্যের
عِتِيًّا
(চরম) শেষসীমায়"

সে বলল, ‘হে আমার পালনকর্তা! আমার পুত্র হবে কেমন করে, আমার স্ত্রী তো বন্ধ্যা, আর আমি বার্ধক্যের শেষ স্তরে পৌঁছে গেছি।’

ব্যাখ্যা
قَالَ
তিনি বললেন
كَذَٰلِكَ
"এরূপই (হবে)
قَالَ
বললেন
رَبُّكَ
তোমার রব
هُوَ
তা
عَلَىَّ
আমার উপর
هَيِّنٌ
সহজসাধ্য
وَقَدْ
এবং নিশ্চয়ই
خَلَقْتُكَ
তোমাকে আমি সৃষ্টি করেছি
مِن
থেকে
قَبْلُ
ইতিপূর্বে
وَلَمْ
যখন না
تَكُ
তুমি ছিলে
شَيْـًٔا
(কোন) কিছুই

তিনি বললেন, ‘এভাবেই হবে, তোমার প্রতিপালক বলেছেন, ‘এটা আমার পক্ষে সহজ। ইতোপূর্বে আমিই তোমাকে সৃষ্টি করেছি যখন তুমি কিছুই ছিলে না।’

ব্যাখ্যা
قَالَ
সে বললো
رَبِّ
"হে আমার রব
ٱجْعَل
দাও
لِّىٓ
আমাকে
ءَايَةًۚ
একটা নিদর্শন"
قَالَ
তিনি বললেন
ءَايَتُكَ
"তোমার নিদর্শন
أَلَّا
(এই) যে না
تُكَلِّمَ
কথা বলতে পারবে
ٱلنَّاسَ
মানুষের (সাথে)
ثَلَٰثَ
তিন
لَيَالٍ
রাত
سَوِيًّا
(ক্রমাগত) সুস্থ অবস্থায়"

সে বলল, ‘হে আমার পালনকর্তা! আমার জন্য একটা চিহ্ন স্থির করে দিন।’ তিনি বললেন, ‘তোমার চিহ্ন এই যে, তুমি তিন রাত মানুষের সঙ্গে কথা বলবে না যদিও তুমি কথা বলতে সক্ষম।’

ব্যাখ্যা
সম্পর্কে তথ্য :
মারইয়াম
القرآن الكريم:مريم
আধিপত্য একটি আয়াত (سجدة):58
সূরা নাম (latin):Maryam
সূরা না:19
মোট আয়াত:98
মোট শব্দ:780
মোট অক্ষর:3700
রুকু সংখ্যা:6
উদ্ঘাটন অবস্থান:মক্কা
উদ্ঘাটন আদেশ:44
শ্লোক থেকে শুরু:2250