Skip to main content

সূরা আল ক্বেয়ামাহ শ্লোক 1

لَآ
না
أُقْسِمُ
কসম খাচ্ছি
بِيَوْمِ
দিনের
ٱلْقِيَٰمَةِ
কিয়ামাতের

তাফসীর তাইসীরুল কুরআন:

আমি কসম করছি ক্বিয়ামতের দিনের,

1 আহসানুল বায়ান | Tafsir Ahsanul Bayaan

আমি শপথ করছি কিয়ামত দিবসের। [১]

[১] لاَ أُقْسِمُ তে لاَ হরফটি অতিরিক্ত। আর এটা আরবী বাকপদ্ধতির বিশেষ রীতি। যেমন,{ مَا مَنَعَكَ أَلاَّ تَسْجُدَ} (সূরা আ'রাফ ৭;১২ আয়াত) {لِئَلاَّ يَعْلَمَ أَهْلُ الْكِتَابِ} (সূরা হাদীদ ৫৭;২৯ আয়াত) আরো অন্যান্য সূরাতেও এইরূপ ব্যবহার হয়েছে। কেউ কেউ বলেছেন, এই শপথের পূর্বে কাফেরদের কথার খন্ডন করা হয়েছে। তারা বলত যে, মরণের পর আর কোন জীবন নেই। لاَ এর দ্বারা বলা হল যে, তোমরা যেমন বলছ, ব্যাপারটা তেমন নয়। আমি কিয়ামতের দিনের কসম খেয়ে বলছি। আর কিয়ামতের দিনের কসম খাওয়ার উদ্দেশ্য তার গুরুত্ব ও মাহাত্ম্যকে স্পষ্ট করা।

2 আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া | Tafsir Abu Bakr Zakaria

আমি শপথ করছি কিয়ামতের দিনের [১] ,

সূরা সংক্রান্ত আলোচনাঃ

আয়াত সংখ্যাঃ ৪০ আয়াত।

নাযিল হওয়ার স্থানঃ মক্কী।

রহমান, রহীম আল্লাহ্র নামে


[১] কারও বিরোধী মনোভাব খন্ডন করার জন্যে শপথ করা হলে শপথের পূর্বে لا ব্যবহৃত হয়। আরবী বাক-পদ্ধতিতে এই ব্যবহার প্রসিদ্ধ ও সুবিদিত। এ শব্দ দ্বারা বক্তব্য শুরু করাই প্রমাণ করে যে, আগে থেকে কোন বিষয়ে আলোচনা চলছিল যার প্রতিবাদ করার জন্য এ সূরা নাযিল হয়েছে। অর্থাৎ তোমরা যা বলেছো তা ঠিক নয়। আমি কসম করে বলছি, প্রকৃত ব্যাপার হচ্ছে এটি। অর্থাৎ কেয়ামত অবশ্যম্ভাবী। [দেখুন, ইবন কাসীর]

3 আল-বায়ান ফাউন্ডেশন | Tafsir Bayaan Foundation

আমি কসম করছি কিয়ামতের দিনের!

4 মুহিউদ্দীন খান | Muhiuddin Khan

আমি শপথ করি কেয়ামত দিবসের,

5 জহুরুল হক | Zohurul Hoque

না, আমি শপথ করছি কিয়ামতের দিনের।