Skip to main content
ARBNDEENIDTRUR

সূরা আন নিসা শ্লোক 18

وَلَيْسَتِ
এবং নয়
ٱلتَّوْبَةُ
তওবা
لِلَّذِينَ
(তাদের) জন্য যারা
يَعْمَلُونَ
কাজ করে
ٱلسَّيِّـَٔاتِ
পাপের
حَتَّىٰٓ
এমনকি
إِذَا
যখন
حَضَرَ
উপস্থিত হয়
أَحَدَهُمُ
কারও তাদের
ٱلْمَوْتُ
মৃত্যু
قَالَ
সে বলে
إِنِّى
''আমি নিশ্চয়ই
تُبْتُ
তওবা করছি
ٱلْـَٰٔنَ
এখন''
وَلَا
এবং নয়
ٱلَّذِينَ
(তাদের জন্যও) যারা
يَمُوتُونَ
মারা যায়
وَهُمْ
তারা এ অবস্থায় যে
كُفَّارٌۚ
কাফির
أُو۟لَٰٓئِكَ
ঐসব লোক
أَعْتَدْنَا
আমরা তৈরী করে রেখেছি
لَهُمْ
তাদের জন্য
عَذَابًا
আজাব
أَلِيمًا
বড় যন্ত্রণাদায়ক

তাফসীর তাইসীরুল কুরআন:

এমন লোকেদের তাওবাহ নিস্ফল যারা গুনাহ করতেই থাকে, অতঃপর মৃত্যুর মুখোমুখী হলে বলে, আমি এখন তাওবাহ করছি এবং (তাওবাহ) তাদের জন্যও নয় যাদের মৃত্যু হয় কাফির অবস্থায়। এরাই তারা যাদের জন্য ভয়াবহ শাস্তির ব্যবস্থা করে রেখেছি।

আহসানুল বায়ান

এবং (আজীবন) যারা মন্দ কাজ করে, তাদের জন্য তওবা নয়, আর তাদের কারো মৃত্যু উপস্থিত হলে সে বলে, ‘আমি এখন তওবা করছি।’ [১] আর যারা অবিশ্বাসী অবস্থায় মারা যায়, তাদের জন্যও তওবা নয়। এরাই তো তারা, যাদের জন্য আমি মর্মন্তুদ শাস্তির ব্যবস্থা করেছি।

[১] এ থেকে এ কথা পরিষ্কার হয়ে যায় যে, মৃত্যুর সময় কৃত তওবা গৃহীত হয় না। অনুরূপ কথা হাদীসেও এসেছে। আর এর প্রয়োজনীয় ব্যাখ্যা সূরা আল-ইমরানের ৩;৯০নং আয়াতে অতিবাহিত হয়েছে।

আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া

তাওবাহ্‌ তাদের জন্য নয় যারা আজীবন মন্দ কাজ করে, অবশেষে তাদের কারো মৃত্যু উপস্থিত হলে সে বলে, ‘আমি এখন তাওবাহ্‌ করছি’ এবং তাদের জন্যও নয়, যাদের মৃত্যু হয় কাফের অবস্থায়। এরাই তারা যাদের জন্য আমরা কষ্টদায়ক শাস্তির ব্যবস্থা করেছি [১]।

[১] ইবন আব্বাস বলেন, এ আয়াত এবং ৪৮ নং আয়াত থেকে বোঝা যায় যে, আল্লাহ তা’আলা কাফের অবস্থায় যারা মারা যাবে তাদেরকে ক্ষমা করবেন না। পক্ষান্তরে যাদের তাওহীদ ঠিক আছে তাদেরকে তিনি তাঁর ইচ্ছার উপর রেখেছেন। তাদেরকে তিনি ক্ষমা থেকে নিরাশ করেন নি। [তাবারী]

আল-বায়ান ফাউন্ডেশন

আর তাওবা নাই তাদের, যারা অন্যায় কাজ করতে থাকে, অবশেষে যখন তাদের কারো মৃত্যু এসে যায়, তখন বলে, আমি এখন তাওবা করলাম, আর তাওবা তাদের জন্য নয়, যারা কাফির অবস্থায় মারা যায়; আমি এদের জন্যই তৈরী করেছি যন্ত্রণাদায়ক আযাব।

মুহিউদ্দীন খান

আর এমন লোকদের জন্য কোন ক্ষমা নেই, যারা মন্দ কাজ করতেই থাকে, এমন কি যখন তাদের কারো মাথার উপর মৃত্যু উপস্থিত হয়, তখন বলতে থাকেঃ আমি এখন তওবা করছি। আর তওবা নেই তাদের জন্য, যারা কুফরী অবস্থায় মৃত্যুবরণ করে। আমি তাদের জন্য যন্ত্রণাদায়ক শাস্তি প্রস্তুত করে রেখেছি।

জহুরুল হক

আর তওবা তাদের জন্য নয় যারা কুকর্ম করেই চলে, যে পর্যন্ত না মৃত্যু তাদের কোনো একের কাছে হাজির হলে সে বলে -- ''আমি অবশ্যই এখন তওবা করছি’’, তাদের জন্যও যারা মারা যায় অথচ তারা অবিশ্বাসী থাকে। তারাই -- তাদের জন্য আমরা তৈরি করেছি ব্যথাদায়ক শাস্তি।