Skip to main content
ARBNDEENIDTRUR
bismillah
يَٰٓأَيُّهَا
''হে
ٱلنَّاسُ
মানবজাতি!
ٱتَّقُوا۟
তোমরা ভয় কর
رَبَّكُمُ
তোমাদের রবকে
ٱلَّذِى
যিনি
خَلَقَكُم
তোমাদেরকে সৃষ্টি করেছেন
مِّن
থেকে
نَّفْسٍ
প্রাণ
وَٰحِدَةٍ
একটি (অর্থাৎ আদম (আঃ))
وَخَلَقَ
ও তিনি সৃষ্টি করেছেন
مِنْهَا
তা হতে
زَوْجَهَا
তার জুড়ী (অর্থাৎ হাওয়া)
وَبَثَّ
ও ছড়িয়ে দিয়েছেন
مِنْهُمَا
তাদের দুজন থেকে
رِجَالًا
পুরুষ লোক
كَثِيرًا
অনেক
وَنِسَآءًۚ
ও স্ত্রীলোক (অনেক)
وَٱتَّقُوا۟
এবং তোমরা ভয় কর
ٱللَّهَ
আল্লাহকে
ٱلَّذِى
সেই (সত্তার)
تَسَآءَلُونَ
তোমরা পরস্পরে (হক) দাবী কর
بِهِۦ
যার (দোহাই দিয়ে)
وَٱلْأَرْحَامَۚ
আর আত্মীয়তার বন্ধন সম্পর্কে সতর্ক থাক
إِنَّ
নিশ্চয়
ٱللَّهَ
আল্লাহ্‌
كَانَ
আছেন
عَلَيْكُمْ
তোমাদের উপর
رَقِيبًا
দৃষ্টিবান

হে মনুষ্য সমাজ! তোমরা তোমাদের প্রতিপালককে ভয় কর, যিনি তোমাদেরকে একটি মাত্র ব্যক্তি হতে পয়দা করেছেন এবং তা হতে তার জোড়া সৃষ্টি করেছেন, অতঃপর সেই দু’জন হতে বহু নর-নারী ছড়িয়ে দিয়েছেন এবং তোমরা আল্লাহকে ভয় কর, যাঁর নামে তোমরা পরস্পর পরস্পরের নিকট (হাক্ব) চেয়ে থাক এবং সতর্ক থাক জ্ঞাতি-বন্ধন সম্পর্কে, নিশ্চয়ই আল্লাহ তোমাদের উপর তীক্ষ্ণ দৃষ্টি রাখেন।

ব্যাখ্যা
وَءَاتُوا۟
এবং তোমরা (ফেরত) দাও
ٱلْيَتَٰمَىٰٓ
ইয়াতীমদেরকে
أَمْوَٰلَهُمْۖ
তাদের মাল সম্পদ সমূহ
وَلَا
এবং না
تَتَبَدَّلُوا۟
তোমরা বদল করো
ٱلْخَبِيثَ
খারাপ (মালকে)
بِٱلطَّيِّبِۖ
ভাল (মালের) পরিবর্তে
وَلَا
এবং না
تَأْكُلُوٓا۟
তোমরা খেয়ো
أَمْوَٰلَهُمْ
তাদের মাল সমূহকে
إِلَىٰٓ
সাথে (মিশিয়ে)
أَمْوَٰلِكُمْۚ
তোমাদের মালসমূহের
إِنَّهُۥ
তা নিশ্চয়ই
كَانَ
হলো
حُوبًا
গুনাহর (কাজ)
كَبِيرًا
বড়ই

এবং ইয়াতীমদেরকে তাদের ধন-সম্পদ প্রদান কর এবং ভালোর সাথে মন্দের বদল করো না এবং তাদের মাল নিজেদের মালের সঙ্গে মিশিয়ে গ্রাস করো না, নিশ্চয় এটা মহাপাপ।

ব্যাখ্যা
وَإِنْ
এবং যদি
خِفْتُمْ
তোমরা ভয় কর
أَلَّا
যে না
تُقْسِطُوا۟
তোমরা সুবিচার করতে পারবে
فِى
প্রতি
ٱلْيَتَٰمَىٰ
ইয়াতীমদের
فَٱنكِحُوا۟
তোমরা বিয়ে তবে কর
مَا
যা
طَابَ
পছন্দনীয়
لَكُم
তোমাদের জন্য
مِّنَ
মধ্য হতে
ٱلنِّسَآءِ
(অন্য স্বাধীনা) নারীদের
مَثْنَىٰ
দুই
وَثُلَٰثَ
বা তিন
وَرُبَٰعَۖ
বা চারটা (পর্যন্ত)
فَإِنْ
কিন্তু যদি
خِفْتُمْ
তোমরা ভয় কর
أَلَّا
না যে
تَعْدِلُوا۟
তোমরা ইনসাফ করতে পারবে
فَوَٰحِدَةً
একজনকে তবে (বিয়ে করবে)
أَوْ
অথবা (বিয়ে কর)
مَا
যা
مَلَكَتْ
মালিক হয়েছে
أَيْمَٰنُكُمْۚ
তোমাদের ডান হাত (অর্থাৎ দাসী)
ذَٰلِكَ
এটা
أَدْنَىٰٓ
(সম্ভাবনার) নিকটবর্তী
أَلَّا
যে না
تَعُولُوا۟
তোমরা অবিচার করবে

যদি তোমরা আশঙ্কা কর যে, (নারী) ইয়াতীমদের প্রতি সুবিচার করতে পারবে না, তবে নারীদের মধ্য হতে নিজেদের পছন্দমত দুই-দুই, তিন-তিন ও চার-চার জনকে বিবাহ কর, কিন্তু যদি তোমরা আশঙ্কা কর যে, তোমরা সুবিচার করতে পারবে না, তাহলে একজনকে কিংবা তোমাদের অধীনস্থ দাসীকে; এটাই হবে অবিচার না করার কাছাকাছি।

ব্যাখ্যা
وَءَاتُوا۟
এবং তোমরা দাও
ٱلنِّسَآءَ
নারীদেরকে
صَدُقَٰتِهِنَّ
তাদের মোহরগুলো
نِحْلَةًۚ
স্বতঃপ্রবৃত্ত হয়ে
فَإِن
যদি অতঃপর
طِبْنَ
তারা ছেড়ে দেয়
لَكُمْ
তোমাদের জন্য
عَن
(প্রায়)
شَىْءٍ
কোন কিছু
مِّنْهُ
তা থেকে
نَفْسًا
নিজেই
فَكُلُوهُ
তোমরা খাও তবে তা
هَنِيٓـًٔا
সানন্দে
مَّرِيٓـًٔا
তৃপ্তিসহ

নারীদেরকে তাদের মোহর স্বতঃস্ফূর্ত হয়ে দেবে, অতঃপর তারা যদি সন্তোষের সঙ্গে তাথেকে তোমাদের জন্য কিছু ছেড়ে দেয়, তবে তা তৃপ্তির সঙ্গে ভোগ কর।

ব্যাখ্যা
وَلَا
এবং না
تُؤْتُوا۟
তোমরা দিও
ٱلسُّفَهَآءَ
অবোধদেরকে
أَمْوَٰلَكُمُ
তোমাদের সম্পদগুলোকে
ٱلَّتِى
যা
جَعَلَ
বানিয়েছেন
ٱللَّهُ
আল্লাহ
لَكُمْ
তোমাদের জন্য
قِيَٰمًا
(জীবিকা) প্রতিষ্ঠার (জন্য)
وَٱرْزُقُوهُمْ
এবং তোমরা খাওয়াও তাদেরকে
فِيهَا
তা থেকে
وَٱكْسُوهُمْ
ও তোমরা পরাও তাদেরকে
وَقُولُوا۟
এবং তোমরা বল
لَهُمْ
তাদেরকে
قَوْلًا
কথা
مَّعْرُوفًا
উত্তম

এবং তোমরা অল্প-বুদ্ধিসম্পন্নদেরকে নিজেদের মাল প্রদান করো না, যা আল্লাহ তোমাদের জীবনে প্রতিষ্ঠিত থাকার উপকরণ করেছেন এবং সে মাল হতে তাদের অন্ন-বস্ত্রের ব্যবস্থা করবে এবং তাদের সঙ্গে দয়ার্দ্র ন্যায়ানুগ কথা বলবে।

ব্যাখ্যা
وَٱبْتَلُوا۟
এবং তোমরা পরিক্ষা কর
ٱلْيَتَٰمَىٰ
ইয়াতীমদেরকে
حَتَّىٰٓ
পর্যন্ত
إِذَا
যতক্ষণ
بَلَغُوا۟
তারা পৌঁছে
ٱلنِّكَاحَ
বিবাহ (বয়সে)
فَإِنْ
অতঃপর যদি
ءَانَسْتُم
তোমরা দেখ
مِّنْهُمْ
তাদের মধ্যে
رُشْدًا
বিচারের জ্ঞান
فَٱدْفَعُوٓا۟
তখন তোমরা অর্পণ কর
إِلَيْهِمْ
তাদের কাছে
أَمْوَٰلَهُمْۖ
তাদের ধন মাল
وَلَا
এবং না
تَأْكُلُوهَآ
তা খেয়ো তোমরা
إِسْرَافًا
সীমালঙ্ঘন করে
وَبِدَارًا
ও তাড়াতাড়ি করে
أَن
যে
يَكْبَرُوا۟ۚ
তারা বড় হয়ে যাবে
وَمَن
আর যে (পৃষ্ঠপোষক )
كَانَ
হবে
غَنِيًّا
অভাবমুক্ত
فَلْيَسْتَعْفِفْۖ
সে নিবৃত্ত থাকবে সে ক্ষেত্রে (তার মাল খাওয়া হতে)
وَمَن
আর যে
كَانَ
হবে
فَقِيرًا
অভাবী
فَلْيَأْكُلْ
সে খাবে সেক্ষেত্রে
بِٱلْمَعْرُوفِۚ
ন্যায় সঙ্গতভাবে
فَإِذَا
যখন তবে
دَفَعْتُمْ
তোমরা সমর্পণ কর
إِلَيْهِمْ
তাদের কাছে
أَمْوَٰلَهُمْ
তাদের সম্পদ সমূহ
فَأَشْهِدُوا۟
তোমরা সাক্ষী রাখ তখন
عَلَيْهِمْۚ
তাদের উপর
وَكَفَىٰ
এবং যথেষ্ট
بِٱللَّهِ
আল্লাহই
حَسِيبًا
হিসাবগ্রহণকারী হিসেবে

ইয়াতীমদেরকে পরখ কর যে পর্যন্ত না তারা বিবাহযোগ্য হয়, যদি তাদের মধ্যে বিচারবোধ লক্ষ্য কর, তবে তাদেরকে তাদের মাল ফিরিয়ে দেবে। তাদের বয়ঃপ্রাপ্তির ভয়ে অপব্যয় করে এবং তাড়াতাড়ি করে তাদের মাল খেয়ে ফেলো না। আর যে অভাবমুক্ত, সে যেন নিবৃত্ত থাকে এবং যে অভাবগ্রস্ত সে ন্যায়সঙ্গতভাবে ভোগ করবে এবং যখন তাদের মাল তাদেরকে সমর্পণ করবে, তাদের সামনে সাক্ষী রাখবে; হিসাব গ্রহণে আল্লাহই যথেষ্ট।

ব্যাখ্যা
لِّلرِّجَالِ
পুরুষদের জন্য
نَصِيبٌ
অংশ
مِّمَّا
তা হতে যা
تَرَكَ
ছেড়ে গেছে (সম্পত্তি)
ٱلْوَٰلِدَانِ
পিতা-মাতা
وَٱلْأَقْرَبُونَ
ও আত্মীয়-স্বজনরা
وَلِلنِّسَآءِ
এবং নারীদের জন্য
نَصِيبٌ
অংশ
مِّمَّا
তা হতে যা
تَرَكَ
ছেড়ে গেছে (সম্পত্তি)
ٱلْوَٰلِدَانِ
পিতা-মাতা
وَٱلْأَقْرَبُونَ
ও আত্মীয়স্বজন
مِمَّا
তা হতে যা
قَلَّ
কম হক
مِنْهُ
তা হতে
أَوْ
বা
كَثُرَۚ
বেশী হক
نَصِيبًا
অংশ
مَّفْرُوضًا
নির্ধারিত

মাতা-পিতা এবং আত্মীয়দের রেখে যাওয়া সম্পত্তিতে পুরুষদের অংশ রয়েছে; আর মাতা-পিতা এবং আত্মীয়দের রেখে যাওয়া সম্পত্তিতে নারীদেরও অংশ আছে, তা অল্পই হোক আর বেশিই হোক, এক নির্ধারিত অংশ।

ব্যাখ্যা
وَإِذَا
এবং যখন
حَضَرَ
উপস্থিত হয়
ٱلْقِسْمَةَ
বণ্টন (কালে)
أُو۟لُوا۟
দুর আত্মীয় -স্বজনরা
ٱلْقُرْبَىٰ
দুর আত্মীয় -স্বজনরা
وَٱلْيَتَٰمَىٰ
ও ইয়াতীমরা
وَٱلْمَسَٰكِينُ
ও দরিদ্ররা
فَٱرْزُقُوهُم
সেক্ষেত্রে তাদের দান কর
مِّنْهُ
তা হতে
وَقُولُوا۟
এবং তোমরা বল
لَهُمْ
তাদের
قَوْلًا
কথা
مَّعْرُوفًا
সদ্ভাবে

(সম্পত্তি) বণ্টনকালে স্বজন, ইয়াতীম এবং মিসকীন উপস্থিত থাকলে তাদেরকেও তাত্থেকে কিছু দিয়ে দেবে, তাদের সঙ্গে দয়ার্দ্র ন্যায়ানুগ কথা বলবে।

ব্যাখ্যা
وَلْيَخْشَ
এবং ভয় করুক
ٱلَّذِينَ
তারা
لَوْ
যদি
تَرَكُوا۟
ছেড়ে যায়
مِنْ
(থেকে)
خَلْفِهِمْ
তাদের পিছনে
ذُرِّيَّةً
সন্তান
ضِعَٰفًا
অসহায় অবস্থায়
خَافُوا۟
তারা ভয় পায়
عَلَيْهِمْ
তাদের জন্য
فَلْيَتَّقُوا۟
তারা অতএব ভয় করে যেন
ٱللَّهَ
আল্লাহকে
وَلْيَقُولُوا۟
এবং তারা যেন বলে
قَوْلًا
কথা
سَدِيدًا
সঠিক

তারা যেন ভয় করে যে, অসহায় সন্তান পেছনে ছেড়ে গেলে তারাও তাদের জন্য চিন্তিত হত, সুতরাং তারা যেন আল্লাহকে ভয় করে এবং সঙ্গত কথা বলে।

ব্যাখ্যা
إِنَّ
নিশ্চয়ই
ٱلَّذِينَ
যারা
يَأْكُلُونَ
খায়
أَمْوَٰلَ
মালসমূহ
ٱلْيَتَٰمَىٰ
ইয়াতীমদের
ظُلْمًا
অন্যায়ভাবে
إِنَّمَا
মূলত
يَأْكُلُونَ
তারা খায়
فِى
মধ্যে
بُطُونِهِمْ
তাদের পেটগুলোর
نَارًاۖ
আগুন
وَسَيَصْلَوْنَ
এবং জ্বলবে
سَعِيرًا
আগুনে

যারা ইয়াতীমদের মাল অন্যায়ভাবে গ্রাস করে, তারা তো নিজেদের পেটে কেবল অগ্নিই ভক্ষণ করে, তারা শীঘ্রই জ্বলন্ত আগুনে জ্বলবে।

ব্যাখ্যা
সম্পর্কে তথ্য :
আন নিসা
القرآن الكريم:النساء
আধিপত্য একটি আয়াত (سجدة):-
সূরা নাম (latin):An-Nisa'
সূরা না:4
মোট আয়াত:176
মোট শব্দ:3054
মোট অক্ষর:6030
রুকু সংখ্যা:24
উদ্ঘাটন অবস্থান:মদিনা
উদ্ঘাটন আদেশ:92
শ্লোক থেকে শুরু:493