Skip to main content

সূরা হা-মীম সেজদাহ শ্লোক 46

مَّنْ
যে
عَمِلَ
কাজ করবে
صَٰلِحًا
সৎ
فَلِنَفْسِهِۦۖ
(সে করবে) তা নিজের জন্যে
وَمَنْ
এবং যে
أَسَآءَ
মন্দকর্ম করবে
فَعَلَيْهَاۗ
(পড়বে) তা তার উপর
وَمَا
আর নন
رَبُّكَ
তোমার রব
بِظَلَّٰمٍ
অত্যাচারী
لِّلْعَبِيدِ
দাসদের উপর

তাফসীর তাইসীরুল কুরআন:

যে সৎকাজ করবে নিজের কল্যাণেই করবে. যে অসৎ কাজ করবে তার পরিণতি তাকেই ভোগ করতে হবে। তোমার প্রতিপালক বান্দাদের প্রতি যালিম নন।

1 আহসানুল বায়ান | Tafsir Ahsanul Bayaan

যে সৎকাজ করে সে নিজের কল্যাণের জন্যই তা করে এবং কেউ মন্দ কাজ করলে তার প্রতিফল সে নিজেই ভোগ করবে। আর তোমার প্রতিপালক তাঁর দাসদের প্রতি কোন যুলুম করেন না। [১]

[১] সুতরাং তিনি শাস্তি কেবল সেই বান্দাকেই দেন, যে পাপী হয়। এমন নয় যে, তিনি যাকে ইচ্ছা তাকেই শাস্তি দিয়ে থাকেন।

2 আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া | Tafsir Abu Bakr Zakaria

যে সৎকাজ করে সে তার নিজের কল্যাণের জন্যই তা করে এবং কেউ মন্দ কাজ করলে তার প্রতিফল সে-ই ভোগ করবে। আর আপনার রব তাঁর বান্দাদের প্রতি মোটেই যুলুমকারী নন।

3 আল-বায়ান ফাউন্ডেশন | Tafsir Bayaan Foundation

যে সৎকর্ম করে সে তার নিজের জন্যই তা করে। আর যে অসৎকর্ম করে তা তার উপরই বর্তাবে। তোমার রব তাঁর বান্দাদের প্রতি মোটেই যালিম নন।

4 মুহিউদ্দীন খান | Muhiuddin Khan

যে সৎকর্ম করে, সে নিজের উপকারের জন্যেই করে, আর যে অসৎকর্ম করে, তা তার উপরই বর্তাবে। আপনার পালনকর্তা বান্দাদের প্রতি মোটেই যুলুম করেন না।

5 জহুরুল হক | Zohurul Hoque

যে কেউ সৎকর্ম করে থাকে, সেটি তো তার নিজের জন্যেই, আর যে কেউ মন্দকাজ করে সেটি তো তারই বিরুদ্ধে। আর তোমার প্রভু দাসদের প্রতি আদৌ অন্যায়কারী নন।