Skip to main content

সূরা যিলযাল শ্লোক 7

فَمَن
অতঃপর যে
يَعْمَلْ
করবে
مِثْقَالَ
পরিমাণ
ذَرَّةٍ
অণু
خَيْرًا
সৎকর্ম
يَرَهُۥ
সে তা দেখবে

তাফসীর তাইসীরুল কুরআন:

অতএব কেউ অণু পরিমাণও সৎ কাজ করলে সে তা দেখবে,

1 আহসানুল বায়ান | Tafsir Ahsanul Bayaan

সুতরাং কেউ অণু পরিমাণ ভালো কাজ করলে, সে তা দেখতে পাবে।[১]

[১] অতএব সে তাতে আনন্দিত হবে।

2 আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া | Tafsir Abu Bakr Zakaria

কেউ অণু পরিমাণ সৎকাজ করলে সে তা দেখবে [১]।

[১] এ আয়াতে خير বলে শরীয়তসম্মত সৎকর্ম বোঝানো হয়েছে; যা ঈমানের সাথে সম্পাদিত হয়ে থাকে। কেননা, ঈমান ব্যতীত কোন সৎকর্মই আল্লাহ্র কাছে সৎকর্ম নয়। কুফার অবস্থায় কৃত সৎকর্ম আখেরাতে ধর্তব্য হবে না যদিও দুনিয়াতে তার প্রতিদান দেয়া হয়। তাই এ আয়াতকে এ বিষয়ের প্রমাণস্বরূপ পেশ করা হয় যে, যার মধ্যে অণু পরিমাণ ঈমান থাকবে, তাকে অবশেষে জাহান্নাম থেকে বের করে নেয়া হবে। কেননা, এ আয়াতের ওয়াদা অনুযায়ী প্রত্যেকের সৎকর্মের ফল আখেরাতে পাওয়া জরুরী। কোন সৎকর্ম না থাকলেও স্বয়ং ঈমানই একটি বিরাট সৎকর্ম বলে বিবেচিত হবে। ফলে মুমিন ব্যক্তি যতবড় গোনাহগারই হোক, চিরকাল জাহান্নামে থাকবে না। কিন্তু কাফের ব্যক্তি দুনিয়াতে কোন সৎকর্ম করে থাকলে ঈমানের অভাবে তা পণ্ডশ্রম মাত্র। তাই আখেরাতে তার কোন সৎকামই থাকবে না।

3 আল-বায়ান ফাউন্ডেশন | Tafsir Bayaan Foundation

অতএব, কেউ অণু পরিমাণ ভালকাজ করলে তা সে দেখবে,

4 মুহিউদ্দীন খান | Muhiuddin Khan

অতঃপর কেউ অণু পরিমাণ সৎকর্ম করলে তা দেখতে পাবে

5 জহুরুল হক | Zohurul Hoque

তখন যে কেউ এক অণু-পরিমাণ সৎকাজ করেছে সে তা দেখতে পাবে;