Skip to main content
ARBNDEENIDTRUR
bismillah
سَبَّحَ
মহিমা ঘোষণা করছে
لِلَّهِ
আল্লাহ্‌রই জন্য
مَا
যা কিছু
فِى
মধ্যে আছে
ٱلسَّمَٰوَٰتِ
আকাশের
وَٱلْأَرْضِۖ
ও পৃথিবীতে
وَهُوَ
এবং তিনি
ٱلْعَزِيزُ
পরাক্রমশালী
ٱلْحَكِيمُ
প্রজ্ঞাময়

আসমান ও যমীনে যা কিছু আছে সবই আল্লাহর গৌরব ও মহিমা ঘোষণা করে, তিনি প্রবল পরাক্রান্ত, মহা প্রজ্ঞাবান।

ব্যাখ্যা
لَهُۥ
তাঁরই জন্যে
مُلْكُ
সার্বভৌমত্ব
ٱلسَّمَٰوَٰتِ
আকাশের
وَٱلْأَرْضِۖ
ও পৃথিবীর
يُحْىِۦ
তিনি জীবন দান করেন
وَيُمِيتُۖ
ও মৃত্যু ঘটান
وَهُوَ
এবং তিনিই
عَلَىٰ
উপর
كُلِّ
সব
شَىْءٍ
কিছুরই
قَدِيرٌ
সর্বশক্তিমান

আসমান ও যমীনের রাজত্ব তাঁরই, তিনিই জীবন দেন, আর তিনিই মৃত্যু দেন, তিনি সব কিছুর উপর ক্ষমতাবান।

ব্যাখ্যা
هُوَ
তিনিই
ٱلْأَوَّلُ
প্রথম
وَٱلْءَاخِرُ
ও (তিনিই) শেষ
وَٱلظَّٰهِرُ
এবং (তিনিই) ব্যক্ত
وَٱلْبَاطِنُۖ
ও তিনিই অব্যক্ত
وَهُوَ
এবং তিনিই
بِكُلِّ
সব সম্বন্ধে
شَىْءٍ
কিছু
عَلِيمٌ
খুব অবহিত

তিনিই প্রথম, তিনিই শেষ, তিনি প্রকাশিত আবার গুপ্ত, তিনি সকল বিষয় পূর্ণরূপে জ্ঞাত।

ব্যাখ্যা
هُوَ
তিনিই
ٱلَّذِى
যিনি
خَلَقَ
সৃষ্টি করেছেন
ٱلسَّمَٰوَٰتِ
আকাশ সমুহকে
وَٱلْأَرْضَ
ও পৃথিবীকে
فِى
মধ্যে
سِتَّةِ
ছয়
أَيَّامٍ
দিনের
ثُمَّ
অতঃপর
ٱسْتَوَىٰ
সমাসীন হন
عَلَى
উপর
ٱلْعَرْشِۚ
আরশের
يَعْلَمُ
তিনি জানেন
مَا
যা কিছু
يَلِجُ
ঢোকে
فِى
মধ্যে
ٱلْأَرْضِ
মাটির
وَمَا
এবং যা
يَخْرُجُ
বের হয়
مِنْهَا
তা থেকে
وَمَا
এবং যা কিছু
يَنزِلُ
নামে
مِنَ
হতে
ٱلسَّمَآءِ
আকাশ
وَمَا
ও যা কিছু
يَعْرُجُ
উঠে
فِيهَاۖ
তার মধ্য হতে
وَهُوَ
এবং তিনি (আছেন)
مَعَكُمْ
তোমাদের সাথে
أَيْنَ
যেখানেই
مَا
যা
كُنتُمْۚ
তোমরা থাক
وَٱللَّهُ
এবং আল্লাহ্‌
بِمَا
ঐ সম্বন্ধে যা
تَعْمَلُونَ
তোমরা কাজ করছ
بَصِيرٌ
খুব দেখেন

তিনি আসমান ও যমীনকে ছয় দিনে সৃষ্টি করেছেন অতঃপর আরশে সমুন্নত হয়েছেন। তিনি জানেন যা যমীনে প্রবেশ করে, আর যা তাত্থেকে বের হয়, আর যা আকাশ থেকে অবতীর্ণ হয়, আর যা তাতে উঠে যায়, তোমরা যেখানেই থাক তিনি তোমাদের সঙ্গে আছেন, তোমরা যে কাজই কর না কেন, আল্লাহ তা দেখেন।

ব্যাখ্যা
لَّهُۥ
তাঁরই জন্যে
مُلْكُ
সার্বভৌমত্ব
ٱلسَّمَٰوَٰتِ
আকাশের
وَٱلْأَرْضِۚ
ও পৃথিবীর
وَإِلَى
এবং দিকে
ٱللَّهِ
আল্লাহ্‌রই
تُرْجَعُ
প্রত্যাবর্তিত হয়
ٱلْأُمُورُ
(সমস্ত) সব বিষয়

আসমান ও যমীনের রাজত্ব তাঁরই, যাবতীয় বিষয় তাঁরই দিকে ফিরে যায় (চূড়ান্ত ফয়সালার জন্য)।

ব্যাখ্যা
يُولِجُ
তিনি প্রবেশ করান
ٱلَّيْلَ
রাতকে
فِى
মধ্যে
ٱلنَّهَارِ
দিনের
وَيُولِجُ
ও প্রবেশ করান
ٱلنَّهَارَ
দিনকে
فِى
মধ্যে
ٱلَّيْلِۚ
রাতের
وَهُوَ
এবং তিনিই
عَلِيمٌۢ
খুব অবহিত
بِذَاتِ
অবস্থা সম্বন্ধে
ٱلصُّدُورِ
অন্তর সমূহের

তিনিই রাতকে প্রবেশ করান দিনের ভিতর, আর দিনকে ঢুকিয়ে দেন রাতের ভিতর, অন্তরের গোপনতত্ত্ব সম্পর্কে তিনি পূর্ণরূপে অবগত।

ব্যাখ্যা
ءَامِنُوا۟
তোমরা ঈমান আন
بِٱللَّهِ
আল্লাহ্‌র উপর
وَرَسُولِهِۦ
ও তাঁর রাসূলের উপর
وَأَنفِقُوا۟
এবং তোমরা খরচ করো
مِمَّا
তা হতে
جَعَلَكُم
তোমাদের করেছেন
مُّسْتَخْلَفِينَ
উত্তরাধিকারী
فِيهِۖ
যাতে
فَٱلَّذِينَ
অতঃএব যারা
ءَامَنُوا۟
ঈমান আনে
مِنكُمْ
তোমাদের মধ্যে হতে
وَأَنفَقُوا۟
ও খরচ করে
لَهُمْ
তাদের জন্য (রয়েছে)
أَجْرٌ
পুরস্কার
كَبِيرٌ
বড়

তোমরা আল্লাহ ও তাঁর রসূলের প্রতি ঈমান আনো, আর তিনি তোমাদেরকে যার উত্তরাধিকারী করেছেন তাত্থেকে (আল্লাহর পথে) ব্যয় কর । কারণ তোমাদের মধ্যে যারা ঈমান আনে আর ব্যয় করে, তাদের জন্য আছে বিরাট প্রতিফল।

ব্যাখ্যা
وَمَا
এবং কি হয়েছে
لَكُمْ
তোমাদের
لَا
(যে) না
تُؤْمِنُونَ
তোমরা ঈমান আন
بِٱللَّهِۙ
আল্লাহ্‌র উপর
وَٱلرَّسُولُ
অথচ রাসূল
يَدْعُوكُمْ
তোমাদেরকে ডাকছেন
لِتُؤْمِنُوا۟
তোমরা ঈমান যেন আন
بِرَبِّكُمْ
তোমার রবের উপর
وَقَدْ
এবং নিশ্চয়ই
أَخَذَ
তিনি নিয়েছেন
مِيثَٰقَكُمْ
তোমাদের প্রতিশ্রুতি
إِن
যদি
كُنتُم
তোমরা হও
مُّؤْمِنِينَ
মুমিন

তোমাদের কী হল যে, তোমরা আল্লাহর প্রতি ঈমান আনবে না যখন রসূল তোমাদেরকে তোমাদের প্রতিপালকের উপর ঈমান আনার জন্য ডাকছে আর তিনি তোমাদের কাছ থেকে প্রতিশ্রুতি গ্রহণ করেছেন, যদি তোমরা বিশ্বাসী হয়েই থাক।

ব্যাখ্যা
هُوَ
তিনিই (সেই আল্লাহ্‌)
ٱلَّذِى
যিনি
يُنَزِّلُ
অবতীর্ণ করেছেন
عَلَىٰ
উপর
عَبْدِهِۦٓ
তাঁর বান্দার/ দাসের
ءَايَٰتٍۭ
আয়াত সমূহ
بَيِّنَٰتٍ
সুস্পষ্ট
لِّيُخْرِجَكُم
তোমাদের বের করার জন্যে
مِّنَ
হতে
ٱلظُّلُمَٰتِ
অন্ধকারসমূহ
إِلَى
দিকে
ٱلنُّورِۚ
আলোর
وَإِنَّ
এবং নিশ্চয়ই
ٱللَّهَ
আল্লাহ্‌
بِكُمْ
তোমাদের উপর
لَرَءُوفٌ
অবশ্যই করুণাময়
رَّحِيمٌ
পরম দয়ালু

তিনিই তাঁর বান্দাহর উপর সুস্পষ্ট আয়াত অবতীর্ণ করেন তোমাদেরকে ঘোর অন্ধকার থেকে আলোতে আনার জন্য, আল্লাহ অবশ্যই তোমাদের প্রতি বড়ই করুণাশীল, অতি দয়ালু।

ব্যাখ্যা
وَمَا
এবং কি
لَكُمْ
তোমাদের হয়েছে
أَلَّا
যে না
تُنفِقُوا۟
তোমরা ব্যয় করছ
فِى
মধ্যে
سَبِيلِ
পথের
ٱللَّهِ
আল্লাহ্‌র
وَلِلَّهِ
অথচ আল্লাহ্‌রই জন্য
مِيرَٰثُ
উত্তারাধিকার (অর্থাৎ মালিকানা)
ٱلسَّمَٰوَٰتِ
আকাশের
وَٱلْأَرْضِۚ
ও পৃথিবীর
لَا
নয়
يَسْتَوِى
সমান
مِنكُم
তোমাদের মধ্য হতে
مَّنْ
যে
أَنفَقَ
ব্যয় করেছে
مِن
মধ্য হতে
قَبْلِ
পূর্বে
ٱلْفَتْحِ
বিজয়ের
وَقَٰتَلَۚ
এবং জিহাদ করেছে
أُو۟لَٰٓئِكَ
ঐসব লোক
أَعْظَمُ
শ্রেস্ততর
دَرَجَةً
মর্যাদায়
مِّنَ
(তাদের) চেয়ে
ٱلَّذِينَ
যারা
أَنفَقُوا۟
ব্যয় করেছে
مِنۢ
মধ্য হতে
بَعْدُ
(বিজয়ের) পরে
وَقَٰتَلُوا۟ۚ
ও যুদ্ধ করেছে
وَكُلًّا
তবে প্রত্যেককে
وَعَدَ
প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন
ٱللَّهُ
আল্লাহ্‌
ٱلْحُسْنَىٰۚ
কল্যাণকর
وَٱللَّهُ
এবং আল্লাহ্‌
بِمَا
ঐ বিষয়ে যা
تَعْمَلُونَ
তোমরা কাজ করছ
خَبِيرٌ
খুব অবগত

তোমাদের হল কী যে তোমরা আল্লাহর পথে ব্যয় করবে না! আকাশ ও পৃথিবীর উত্তরাধিকার তো আল্লাহরই জন্য (কাজেই তাঁর পথে ব্যয় করলে তোমরা গরীব হয়ে যাবে এ আশঙ্কার কোন কারণ নেই)। তোমাদের মধ্যে যারা (মক্কা) বিজয়ের পূর্বে ব্যয় করেছে আর যুদ্ধ করেছে তারা সমান নয় (তাদের, যারা তা বিজয়ের পরে করেছে); তাদের মর্যাদা অনেক বড় তাদের তুলনায় যারা পরে ব্যয় করেছে ও যুদ্ধ করেছে। উভয়ের জন্যই আল্লাহ কল্যাণের ও‘য়াদা দিয়েছেন। তোমরা যা কিছু কর সে সম্পর্কে আল্লাহ পূর্ণভাবে অবগত।

ব্যাখ্যা
সম্পর্কে তথ্য :
আল হাদীদ
القرآن الكريم:الحديد
আধিপত্য একটি আয়াত (سجدة):-
সূরা নাম (latin):Al-Hadid
সূরা না:57
মোট আয়াত:29
মোট শব্দ:544
মোট অক্ষর:2476
রুকু সংখ্যা:4
উদ্ঘাটন অবস্থান:মদিনা
উদ্ঘাটন আদেশ:94
শ্লোক থেকে শুরু:5075