Skip to main content
ARBNDEENIDTRUR
bismillah
سَبَّحَ
তাসবিহ করে
لِلَّهِ
আল্লাহর জন্য
مَا
যা কিছু
فِى
মধ্যে
ٱلسَّمَٰوَٰتِ
আকাশসমূহের
وَمَا
ও যা কিছু
فِى
মধ্যে
ٱلْأَرْضِۖ
পৃথিবীর
وَهُوَ
এবং তিনিই
ٱلْعَزِيزُ
পরাক্রমশালী
ٱلْحَكِيمُ
মহাবিজ্ঞ

আসমান ও যমীনে যা কিছু আছে সবই আল্লাহর গৌরব ও মহিমা ঘোষণা করে। আর তিনি (আল্লাহ) পরাক্রমশালী প্রজ্ঞাময়।

ব্যাখ্যা
هُوَ
তিনিই
ٱلَّذِىٓ
যিনি
أَخْرَجَ
বের করেছেন
ٱلَّذِينَ
যারা
كَفَرُوا۟
কুফুরি করেছিল
مِنْ
মধ্যে
أَهْلِ
আহলে
ٱلْكِتَٰبِ
কিতাবদের
مِن
হতে
دِيَٰرِهِمْ
ঘরবাড়ি গুলো তাদের
لِأَوَّلِ
প্রথম
ٱلْحَشْرِۚ
সমাবেশেই
مَا
নাই
ظَنَنتُمْ
তোমরা ধারণা কর
أَن
যে
يَخْرُجُوا۟ۖ
তারা বের হবে
وَظَنُّوٓا۟
ও তারা ধারণা করেছিল
أَنَّهُم
তারা যে
مَّانِعَتُهُمْ
তাদের রক্ষাকারী
حُصُونُهُم
তাদের দুর্গগুলো
مِّنَ
হতে
ٱللَّهِ
আল্লাহ
فَأَتَىٰهُمُ
তাদের (কাছে) আসলেন কিন্তু
ٱللَّهُ
আল্লাহ
مِنْ
(এমনদিক) হতে
حَيْثُ
যেখানে
لَمْ
নাই
يَحْتَسِبُوا۟ۖ
তারা ভাবেও
وَقَذَفَ
ও সঞ্চার করলেন
فِى
মধ্যে
قُلُوبِهِمُ
তাদের অন্তর সমূহের
ٱلرُّعْبَۚ
ক্রাস
يُخْرِبُونَ
তারা ধ্বংস করল
بُيُوتَهُم
তাদের ঘরগুলো
بِأَيْدِيهِمْ
তাদের হাত দিয়ে
وَأَيْدِى
ও হাতগুলো
ٱلْمُؤْمِنِينَ
মুমিনদের
فَٱعْتَبِرُوا۟
তোমরা শিক্ষা অতএব গ্রহণ কর
يَٰٓأُو۟لِى
হে
ٱلْأَبْصَٰرِ
দৃষ্টিবানরা

কিতাবধারীদের অন্তর্ভুক্ত কাফিরদেরকে আক্রমণের প্রথম ধাপেই তিনিই তাদের বাড়ী থেকে বের ক’রে দিলেন। তোমরা ধারণাও করনি যে, তারা বের হবে। আর তারা মনে করেছিল যে, তাদের দূর্গগুলো তাদেরকে আল্লাহ (’র কবল) থেকে রক্ষা করবে। কিন্তু আল্লাহ তাদেরকে এমন দিক থেকে পাকড়াও করলেন যা তারা ভাবতেও পারেনি। তিনি তাদের অন্তরে ভীতির সঞ্চার করলেন। তারা তাদের নিজেদের হাত দিয়েই নিজেদের ঘরবাড়ী ধ্বংস করল, আর মু’মিনদের হাতেও (ধ্বংস করাল)। অতএব হে দৃষ্টিসম্পন্ন মানুষেরা! তোমরা শিক্ষা গ্রহণ কর।

ব্যাখ্যা
وَلَوْلَآ
এবং যদি না
أَن
যে
كَتَبَ
লিখতেন
ٱللَّهُ
আল্লাহ
عَلَيْهِمُ
তাদের উপর
ٱلْجَلَآءَ
নির্বাসন
لَعَذَّبَهُمْ
তাদের শাস্তি অবশ্যই দিতেন
فِى
মধ্যে
ٱلدُّنْيَاۖ
দুনিয়ার
وَلَهُمْ
এবং তাদের জন্য
فِى
(আছে)
ٱلْءَاخِرَةِ
আখেরাতে
عَذَابُ
শাস্তি
ٱلنَّارِ
আগুনের

আল্লাহ যদি তাদের জন্য নির্বাসন না লিখে দিতেন, তাহলে তিনি তাদেরকে দুনিয়াতেই অবশ্য অবশ্যই (অন্য) শাস্তি দিতেন, পরকালে তো তাদের জন্য জাহান্নামের শাস্তি আছেই।

ব্যাখ্যা
ذَٰلِكَ
এটা
بِأَنَّهُمْ
তারা যে এজন্যে
شَآقُّوا۟
বিরুদ্ধচারণ করেছিল
ٱللَّهَ
আল্লাহর
وَرَسُولَهُۥۖ
ও তার রসুলের
وَمَن
এবং যে
يُشَآقِّ
বিরুদ্ধচারণ করে
ٱللَّهَ
আল্লাহর
فَإِنَّ
নিশ্চয় অতঃপর
ٱللَّهَ
আল্লাহ
شَدِيدُ
কঠোর
ٱلْعِقَابِ
শাস্তিদানে

এর কারণ এই যে, তারা আল্লাহ ও তাঁর রসূলের প্রবল বিরোধিতা করেছে; আর যে-ই আল্লাহর বিরোধিতা করবে, আল্লাহ তাকে শাস্তিদানে বড়ই কঠোর।

ব্যাখ্যা
مَا
যা
قَطَعْتُم
তোমরা কেটেছ
مِّن
মধ্য হতে
لِّينَةٍ
খেজুর গাছের
أَوْ
বা
تَرَكْتُمُوهَا
তা তোমরা ছেড়ে দিয়েছ
قَآئِمَةً
দাঁড়ান অবস্থায়
عَلَىٰٓ
উপর
أُصُولِهَا
তারা শিকড়গুলোর
فَبِإِذْنِ
অনুমতিক্রমে তা'তো
ٱللَّهِ
আল্লাহর
وَلِيُخْزِىَ
এবং লাঞ্ছিত করার জন্যে
ٱلْفَٰسِقِينَ
ফাসেকদের

তোমরা খেজুরের যে গাছগুলো কেটেছ আর যেগুলোকে তাদের মূলকান্ডের উপর দাঁড়িয়ে থাকতে দিয়েছ, তা আল্লাহর অনুমতিক্রমেই (করেছ)। আর (এ অনুমতি আল্লাহ এজন্য দিয়েছেন) যেন তিনি পাপাচারীদেরকে অপমানিত করেন।

ব্যাখ্যা
وَمَآ
এবং যা
أَفَآءَ
ফায় দিয়েছে
ٱللَّهُ
আল্লাহ
عَلَىٰ
নিকট
رَسُولِهِۦ
তার রসূলের
مِنْهُمْ
তাদের থেকে
فَمَآ
নাই এ জন্য
أَوْجَفْتُمْ
তোমরা দৌড়াও
عَلَيْهِ
তার উপর
مِنْ
কোন
خَيْلٍ
ঘোড়া
وَلَا
এবং না
رِكَابٍ
উট
وَلَٰكِنَّ
কিন্তু
ٱللَّهَ
আল্লাহ
يُسَلِّطُ
আধিপত্য দেন
رُسُلَهُۥ
তার রসূলদেরকে
عَلَىٰ
উপর
مَن
যার
يَشَآءُۚ
তিনি ইচ্ছে করেন
وَٱللَّهُ
এবং আল্লাহ
عَلَىٰ
উপর
كُلِّ
সব
شَىْءٍ
কিছুুর
قَدِيرٌ
ক্ষমতাবান

আল্লাহ তাঁর রসূলকে তাদের কাছ থেকে যে ফায় (বিনা যুদ্ধে পাওয়া সম্পদ) দিয়েছেন তার জন্য তোমরা ঘোড়াও দৌড়াওনি, আর উটেও চড়নি, বরং আল্লাহ তাঁর রসূলগণকে যার উপর ইচ্ছে আধিপত্য দান করেন; আল্লাহ সর্ববিষয়ে ক্ষমতাবান।

ব্যাখ্যা
مَّآ
যা
أَفَآءَ
ফায় দিয়েছেন
ٱللَّهُ
আল্লাহ
عَلَىٰ
(উপর)
رَسُولِهِۦ
তার রাসূলকে
مِنْ
হতে
أَهْلِ
বাসীদের
ٱلْقُرَىٰ
জনপদ
فَلِلَّهِ
আল্লাহর জন্যে তা
وَلِلرَّسُولِ
ও রসূলের জন্যে
وَلِذِى
এবং জন্যে
ٱلْقُرْبَىٰ
নিকট আত্মীয় স্বজনদের
وَٱلْيَتَٰمَىٰ
ও য়াতীমদের
وَٱلْمَسَٰكِينِ
ও অভাবগ্রস্তদের
وَٱبْنِ
ٱلسَّبِيلِ
পথিকদের
كَىْ
যাতে
لَا
না
يَكُونَ
হয়
دُولَةًۢ
আবর্তিত
بَيْنَ
মাঝে
ٱلْأَغْنِيَآءِ
ধনীদের
مِنكُمْۚ
তোমাদের মধ্যে
وَمَآ
এবং যা
ءَاتَىٰكُمُ
তোমাদের দান করেন
ٱلرَّسُولُ
রসূল
فَخُذُوهُ
তা তোমরা গ্রহণ অতঃপর কর
وَمَا
এবং যা
نَهَىٰكُمْ
তোমাদের নিষেধ করেন
عَنْهُ
তা থেকে
فَٱنتَهُوا۟ۚ
তোমরা বিরত অতঃপর হও
وَٱتَّقُوا۟
এবং তোমরা ভয়কর
ٱللَّهَۖ
আল্লাহকে
إِنَّ
নিশ্চয়
ٱللَّهَ
আল্লাহ
شَدِيدُ
কঠোর
ٱلْعِقَابِ
শাস্তিদানে

যে ধন-সম্পদ আল্লাহ জনপদবাসীদের কাছ থেকে নিয়ে তাঁর রসূলকে দিলেন তা আল্লাহর জন্য তাঁর রসূলের জন্য আর রসূলের আত্মীয়-স্বজন, ইয়াতীম, মিসকীন ও পথিকদের জন্য যাতে তা তোমাদের মধ্যকার সম্পদশালীদের মধ্যেই আবর্তিত না হয়। রসূল তোমাদেরকে যা দেয় তা গ্রহণ কর, আর তোমাদেরকে যাত্থেকে নিষেধ করে তাত্থেকে বিরত থাক, আল্লাহকে ভয় কর, আল্লাহ কঠিন শাস্তিদাতা।

ব্যাখ্যা
لِلْفُقَرَآءِ
অভাবগ্রস্তদের জন্যে
ٱلْمُهَٰجِرِينَ
মাোহাজিরদের
ٱلَّذِينَ
যারা
أُخْرِجُوا۟
বহিষ্কৃত হয়েছে
مِن
হতে
دِيَٰرِهِمْ
তাদের ঘোড়বাড়ী গুলো
وَأَمْوَٰلِهِمْ
ও তাদের সম্পদগুলো
يَبْتَغُونَ
তারা পেতে চা্য়
فَضْلًا
অনুগ্রহ
مِّنَ
থেকে
ٱللَّهِ
আল্লাহ
وَرِضْوَٰنًا
ও সন্তুষ্টি
وَيَنصُرُونَ
এবং তারা সাহায্য করে
ٱللَّهَ
আল্লাহকে
وَرَسُولَهُۥٓۚ
ও তার রসূলকে
أُو۟لَٰٓئِكَ
ঐসবলোক
هُمُ
তারাই
ٱلصَّٰدِقُونَ
সত্যবাদী

(আর এ সম্পদ) সে সব দরিদ্র মুহাজিরদের জন্য যাদেরকে তাদের বাড়ীঘর ও সম্পত্তি-সম্পদ থেকে উৎখাত করা হয়েছে। যারা আল্লাহর অনুগ্রহ ও সন্তুষ্টি কামনা করে, আর তারা আল্লাহ ও তাঁর রসূলকে সাহায্য করে। এরাই সত্যবাদী।

ব্যাখ্যা
وَٱلَّذِينَ
এবং যারা
تَبَوَّءُو
বসবাস করেছে
ٱلدَّارَ
(এই) নগরীতে
وَٱلْإِيمَٰنَ
এবং ঈমান (এনেছে)
مِن
মধ্য হতে
قَبْلِهِمْ
তাদের পূর্বে
يُحِبُّونَ
তারা ভালোবাসে
مَنْ
(তাদেরকে) যারা
هَاجَرَ
হিজরত করেছে
إِلَيْهِمْ
তাদের দিকে
وَلَا
এবং না
يَجِدُونَ
তারাপায়
فِى
মধ্যে
صُدُورِهِمْ
তাদের অন্তরগুলোর
حَاجَةً
প্রয়োজনের (অনুভূতি)
مِّمَّآ
(যা) তা থেকে
أُوتُوا۟
তাদের দেয়া হয়
وَيُؤْثِرُونَ
এবং তারা প্রাধান্য দেয়
عَلَىٰٓ
উপর
أَنفُسِهِمْ
তাদের নিজেদের
وَلَوْ
এবং যদিও
كَانَ
আছে
بِهِمْ
তাদের সাথে
خَصَاصَةٌۚ
অঅভাব অনটন
وَمَن
এবং যে
يُوقَ
রক্ষা করবে
شُحَّ
কৃপণতা (থেকে)
نَفْسِهِۦ
তার নিজেকে
فَأُو۟لَٰٓئِكَ
ঐসব অতঃপর লোক
هُمُ
তারাই
ٱلْمُفْلِحُونَ
সফলকাম

(আর এ সম্পদ তাদের জন্যও) যারা মুহাজিরদের আসার আগে থেকেই (মাদীনাহ) নগরীর বাসিন্দা ছিল আর ঈমান গ্রহণ করেছে। তারা তাদেরকে ভালবাসে যারা তাদের কাছে হিজরাত করে এসেছে। মুহাজিরদেরকে যা দেয়া হয়েছে তা পাওয়ার জন্য তারা নিজেদের অন্তরে কোন কামনা রাখে না, আর তাদেরকে (অর্থাৎ মুহাজিরদেরকে) নিজেদের উপর অগ্রাধিকার দেয়- নিজেরা যতই অভাবগ্রস্ত হোক না কেন। বস্তুত; যাদেরকে হৃদয়ের সংকীর্ণতা থেকে রক্ষা করা হয়েছে তারাই সফলকাম।

ব্যাখ্যা
وَٱلَّذِينَ
এবং যারা
جَآءُو
এসেছে
مِنۢ
মধ্য হতে
بَعْدِهِمْ
তাদের পরে
يَقُولُونَ
তারা বলে
رَبَّنَا
"হে আমাদের রব
ٱغْفِرْ
ক্ষমা কর
لَنَا
আমাদের
وَلِإِخْوَٰنِنَا
ও আমাদের ভাই দেরকে
ٱلَّذِينَ
যারা
سَبَقُونَا
আমাদের অগ্রণী হয়েছে
بِٱلْإِيمَٰنِ
ইমানের ক্ষেত্রে
وَلَا
এবং না
تَجْعَلْ
রেখো
فِى
মধ্যে
قُلُوبِنَا
আমদের অন্তর গুলোর
غِلًّا
হিংসা বিদ্বেষ
لِّلَّذِينَ
যারাা (তাদের) জন্য
ءَامَنُوا۟
ইমান এনেছে
رَبَّنَآ
হে আমাাদের রব
إِنَّكَ
তুমি নিশ্চয়
رَءُوفٌ
দয়ালু
رَّحِيمٌ
মেহেরবান"

(এ সম্পদ তাদের জন্যও) যারা অগ্রবর্তীদের পরে (ইসলামের ছায়াতলে) এসেছে। তারা বলে- ‘হে আমাদের প্রতিপালক! আমাদেরকে আর আমাদের ভাইদেরকে ক্ষমা কর যারা ঈমানের ক্ষেত্রে আমাদের অগ্রবর্তী হয়েছে, আর যারা ঈমান এনেছে তাদের ব্যাপারে আমাদের অন্তরে কোন হিংসা বিদ্বেষ রেখো না। হে আমাদের প্রতিপালক! তুমি বড়ই করুণাময়, অতি দয়ালু।’

ব্যাখ্যা
সম্পর্কে তথ্য :
আল হাশর
القرآن الكريم:الحشر
আধিপত্য একটি আয়াত (سجدة):-
সূরা নাম (latin):Al-Hasyr
সূরা না:59
মোট আয়াত:24
মোট শব্দ:445
মোট অক্ষর:1903
রুকু সংখ্যা:3
উদ্ঘাটন অবস্থান:মদিনা
উদ্ঘাটন আদেশ:101
শ্লোক থেকে শুরু:5126