Skip to main content
ARBNDEENIDTRUR
bismillah
ٱقْتَرَبَ
নিকটে এসেছে
لِلنَّاسِ
জন্যে মানুষের
حِسَابُهُمْ
তাদের হিসাব (নেয়ার সময়)
وَهُمْ
অথচ তারা
فِى
মধ্যে
غَفْلَةٍ
উদাসীনতার
مُّعْرِضُونَ
পড়ে আছে বিমুখ হয়ে

মানুষের হিসাব গ্রহণের কাল ক্রমশঃ ঘনিয়ে আসছে কিন্তু তারা গাফলতিতে মুখ ফিরিয়ে রেখেছে।

ব্যাখ্যা
مَا
না
يَأْتِيهِم
তাদের কাছে আসে
مِّن
কোন
ذِكْرٍ
উপদেশ
مِّن
পক্ষ হ'তে
رَّبِّهِم
তাদের রবের
مُّحْدَثٍ
নতুন
إِلَّا
এ ছাড়া যে
ٱسْتَمَعُوهُ
তা তারা শুনে
وَهُمْ
এমতাবস্হায় যে তারা
يَلْعَبُونَ
খেলায় মেতে থাকে

তাদের কাছে তাদের প্রতিপালকের পক্ষ হতে যখনই কোন নতুন উপদেশ আসে, তখন তারা তা হাসি-তামাশার বস্তু মনে করেই শোনে।

ব্যাখ্যা
لَاهِيَةً
অমনোযোগী থাকে
قُلُوبُهُمْۗ
তাদের অন্তরগুলো
وَأَسَرُّوا۟
এবং তারা গোপনে করে
ٱلنَّجْوَى
পরামর্শ
ٱلَّذِينَ
যারা
ظَلَمُوا۟
সীমালঙ্ঘন করেছে
هَلْ
"(তারা বলে) নয় কি
هَٰذَآ
এই (ব্যক্তি)
إِلَّا
এছাড়া
بَشَرٌ
একজন মানুষ
مِّثْلُكُمْۖ
তোমাদেরই মতো
أَفَتَأْتُونَ
তবে কি তোমরা এসে পড়বে
ٱلسِّحْرَ
জাদুর (খপ্পরে)
وَأَنتُمْ
অথচ তোমরা
تُبْصِرُونَ
দেখছো"

তাদের অন্তর থাকে খেলায় মগ্ন। যালিমরা গোপনে পরামর্শ করে- এটা তোমাদেরই মত মানুষ ছাড়া কি অন্য কিছু? তোমরা কি দেখে-শুনে যাদুর কবলে পড়বে?

ব্যাখ্যা
قَالَ
(নাবী) বললো
رَبِّى
"আমার রব
يَعْلَمُ
জানেন
ٱلْقَوْلَ
(সেই সব) কথা
فِى
(যা হয়) মধ্যে
ٱلسَّمَآءِ
আকাশমন্ডলীর
وَٱلْأَرْضِۖ
ও পৃথিবীর
وَهُوَ
এবং তিনিই
ٱلسَّمِيعُ
সবকিছু শুনেন
ٱلْعَلِيمُ
সবকিছু জানেন"

বল, ‘আমার প্রতিপালক আসমান ও যমীনে (উচ্চারিত প্রতিটি) কথাই জানেন, আর তিনি সব কিছু শোনেন, সব কিছু জানেন।’

ব্যাখ্যা
بَلْ
বরং
قَالُوٓا۟
তারা বলে
أَضْغَٰثُ
"(এসব) অলীক
أَحْلَٰمٍۭ
স্বপ্নসমূহ
بَلِ
বরং
ٱفْتَرَىٰهُ
তা সে উদ্ভাবন করেছে
بَلْ
বরং
هُوَ
সে
شَاعِرٌ
একজন কবি
فَلْيَأْتِنَا
তাহ'লে আসুক আমাদের কাছে
بِـَٔايَةٍ
কোন নিদর্শন
كَمَآ
যেমন
أُرْسِلَ
পাঠানো হয়েছিলো
ٱلْأَوَّلُونَ
পূর্ববর্তীগণকে (নিদর্শনসহ)"

তারা এও বলে, ‘এসব অলীক স্বপ্ন, না হয় সে মিথ্যে উদ্ভাবন করেছে, না হয় সে একজন কবি। কাজেই সে আমাদের কাছে এমন নিদর্শন নিয়ে আসুক যেমন পূর্ববর্তী (নবী)-গণের কাছে পাঠানো হয়েছিল।

ব্যাখ্যা
مَآ
নি
ءَامَنَتْ
ঈমান আনে
قَبْلَهُم
তাদের পূর্বে
مِّن
কোন
قَرْيَةٍ
জনবসতিই
أَهْلَكْنَٰهَآۖ
যাকে আমরা ধ্বংস করেছি
أَفَهُمْ
তবে কি এরা
يُؤْمِنُونَ
ঈমান আনবে (এখন)

তাদের পূর্বে আমি যে সমস্ত জনপদ ধ্বংস করেছি তাদের একটিও ঈমান আনেনি, তাহলে এরা কি ঈমান আনবে?

ব্যাখ্যা
وَمَآ
এবং না (হে নবী)
أَرْسَلْنَا
আমরা পাঠিয়েছি
قَبْلَكَ
তোমার পূর্বে (কোন রাসূলকে)
إِلَّا
এ ছাড়া যে
رِجَالًا
(সে ছিলো) পুরুষ
نُّوحِىٓ
ওহী করতাম আমরা
إِلَيْهِمْۖ
তাদের কাছে
فَسْـَٔلُوٓا۟
অতএব জিজ্ঞেস করো
أَهْلَ
অধিকারীদের
ٱلذِّكْرِ
জ্ঞানের
إِن
যদি
كُنتُمْ
তোমরা
لَا
না
تَعْلَمُونَ
জানো

তোমার পূর্বে যে সব রসূল পাঠিয়েছিলাম যাদের প্রতি আমি ওয়াহী করতাম তারা মানুষই ছিল, তোমরা যদি না জান তবে (অবতীর্ণ) কিতাবের জ্ঞান যাদের আছে তাদেরকে জিজ্ঞেস কর।

ব্যাখ্যা
وَمَا
এবং নি
جَعَلْنَٰهُمْ
তাদের আমরা বানাই
جَسَدًا
(এমন) দেহ বিশিষ্ট
لَّا
যে না
يَأْكُلُونَ
তারা খেতো
ٱلطَّعَامَ
খাবার
وَمَا
আর না
كَانُوا۟
তারা ছিলো
خَٰلِدِينَ
চিরস্থায়ী

তাদেরকে এমন দেহবিশিষ্ট করিনি যে তারা খাদ্য খেত না আর তারা ছিল না চিরস্থায়ী।

ব্যাখ্যা
ثُمَّ
এরপর
صَدَقْنَٰهُمُ
তাদের প্রতি আমরা সত্য করে দেখালাম
ٱلْوَعْدَ
প্রতিশ্রুতি
فَأَنجَيْنَٰهُمْ
অতঃপর তাদেরকে আমরা রক্ষা করেছি
وَمَن
ও যাদেরকে
نَّشَآءُ
চেয়েছি আমরা
وَأَهْلَكْنَا
এবং আমরা ধ্বংস করেছি
ٱلْمُسْرِفِينَ
সীমালঙ্ঘনকারীদেরকে

অতঃপর আমি তাদেরকে দেয়া আমার ওয়া‘দা সত্যে পরিণত করলাম। ফলতঃ আমি তাদেরকে এবং আরো যাদেরকে চাইলাম রক্ষা করলাম আর সীমালঙ্ঘনকারীদেরকে ধ্বংস করে দিলাম।

ব্যাখ্যা
لَقَدْ
নিশ্চয়ই
أَنزَلْنَآ
আমরা অবতীর্ণ করেছি
إِلَيْكُمْ
তোমাদের প্রতি
كِتَٰبًا
কিতাব
فِيهِ
তার মধ্যে (রয়েছে)
ذِكْرُكُمْۖ
তোমাদেরই বর্ণনা
أَفَلَا
তবে কি না
تَعْقِلُونَ
তোমরা বুঝবে

আমি তোমাদের প্রতি নাযিল করেছি এক কিতাব যাতে তোমাদের জন্য আছে উপদেশ, তোমরা কি তবুও বুঝবে না?

ব্যাখ্যা
সম্পর্কে তথ্য :
আম্বিয়া
القرآن الكريم:الأنبياء
আধিপত্য একটি আয়াত (سجدة):-
সূরা নাম (latin):Al-Anbiya
সূরা না:21
মোট আয়াত:112
মোট শব্দ:1168
মোট অক্ষর:4890
রুকু সংখ্যা:7
উদ্ঘাটন অবস্থান:মক্কা
উদ্ঘাটন আদেশ:73
শ্লোক থেকে শুরু:2483